২২ গজের দানব!

প্রকাশিত: ৭:১৫ অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০২০

নামটা কি বলতেই হবে? শিরোনাম দেখে কার কথা মনে পড়ছে? ক্রিস গেইল, এবিডি না কি অন্য কেউ! হ্যাঁ আজকের গল্পটা অন্য কাউকে নিয়েই, তিনি আর কেউ নন তিনি ক্যারিবিয়ান দৈত্য আন্দ্রে রাসেল।

ক্রিকেট নেশা, ক্রিকেট পেশা। সেই ছোট বেলা থেকেই ক্রিকেটের ২২ গজকে করেছেন সঙ্গী। সাক্ষী হয়ে আছে অনেক রেকর্ড বুকের পাতার। একজন রাসেলকে চিনতে হলে সর্বপ্রথম মনে পড়বে তার ব্যাটিং তান্ডবের কথা। ক্রিকেট গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা। আর সেই খেলায় বিপক্ষের পথের কাঁটা হয়ে মাঝে মাঝে দাঁড়িয়ে যান তিনি। কখনো ব্যাট হাতে আবার কখনো বল হাতে।

জাতীয় দলে খুব বেশী না খেললেও দাপিয়ে বেড়ান দেশের নানান প্রান্তে। মাতিয়ে বেড়ান টি-২০ লীগগুলো। রাসেল এমন একজন ক্রিকেটার যিনি নিজের দিনে অসম্ভব কিছুকেও সম্ভব করে দেখিয়ে দেন। যেই ম্যাচগুলো নিশ্চিত হারের মুখে সেখানে দলের ত্রাণকর্তা হিসেবে ভয়ংকর রূপে রাসেলের আবির্ভাব। ১০ বলে ৩০ বলেন আর ২ ওভারে ৪০ বলেন! রাসেলের কাছে খুব বেশী কঠিন নয়। ক্রিজে একবার দাড়িয়ে গেলে বল হারানোর উৎসবে মেতে উঠেন তিনি। আবার কখনো দূর্দান্ত ইয়র্কারে উপড়ে নেন প্রতিপক্ষের স্ট্যাম্প! বনে যান নায়ক।

একজন রাসেলকে সবাই বিধ্বংসী ক্রিকেটার হিসেবে সবাই চিনলেও দলের প্রয়োজনে ঠান্ডা মাথায় খেলে যেতেও অভ্যস্থ তিনি। সবমিলিয়ে ২২ গজের সৌন্দর্য বললেও ভুল হবেনা। কেননা ব্যাট বলের পাশাপাশি ফিল্ডিংয়ের দূর্দান্ত, সাথে মাঝে মাঝেই নৃত্যে মেতে উঠেন তিনি। এই রাসেল এখন পর্যন্ত দেশের জার্সিতে খেলেছেন ১০৭ টি ম্যাচ। নামের পাশে যুক্ত করেছেন ১৫৭৬ রান এবং ঝুলিতে পুড়েছেন ৯৭ টি উইকেট!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আহামরি পারফরম্যান্স না হলের লীগের পারফর্ম চোখে পড়ার মতো। এখন পর্যন্ত ৩২১ টি টি-২০ ম্যাচে ১৭১.২৯ স্টাইকরেটে ৫৩৬৫ রানের পাশাপাশি বল হাতে শিকার করেছেন ২৯১ উইকেট।

বেশকয়েকবার বিভিন্ন টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন ট্রফি হাতে নেওয়ার সুযোগ হয়েছে তার। সর্বশেষ বিপিএলে রাজশাহীকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা এনে দেন তিনি।

এই রাসেলকে নিয়ে অনেক ইতিহাস লেখা বাকি।

-হাসান নোমান