সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি বিপদসীমার ওপরে

প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০২০

সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি বেড়েই চলেছে। এতে জেলার বন্যার অবনতি হয়েছে। পানি বাড়ার কারণে প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। তলিয়ে যাচ্ছে রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি। পানিবন্দি অনেক মানুষ বাঁধ ও উঁচু স্থানে ঝুপড়ি ঘর তুলে অবস্থান নিয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা হার্ডপয়েন্ট এলাকায় জেলা পয়েন্টে পানি ৩৩ সেন্টিমিটার বেড়েছে। জেলা পয়েন্টে আজ বুধবার পানি বিপদসীমার ৬৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। কাজীপুর উপজেলা পয়েন্টে বিপৎসীমার ৯৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বাড়ায় নদী-তীরবর্তী কাজীপুর উপজেলার ক্ষুদবান্ধি, সিংগড়াবাড়ি ও শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরীতে ব্যাপক ঘূর্ণাবর্তের কারণে ভাঙন বেড়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে বন্যাকবলিত জেলার কাজীপুর, বেলকুচি, সদর, শাহজাদপুর ও চৌহালী উপজেলার দেড় লাখ মানুষ।

পাউবোর পরিচালন ও রক্ষণাবেক্ষণ (পওর) বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী এ কে এম রফিকুল ইসলাম জানান- জেলার প্রায় ৮০ কিলোমিটার নদীতীর রক্ষা বাঁধের ওপর ভাঙনের ঝুঁকি ঠেকাতে ১৯৯৯-২০০০ অর্থবছরে সদর, কাজীপুর ও এনায়েতপুরে ১১টি স্পার ও গ্রোয়েন নির্মাণ করা হয়। সময়মতো রক্ষণাবেক্ষণ না করায় অধিকাংশই ক্রমে দুর্বল হয়ে পড়ে। ওই সব অবকাঠামোর মধ্যে শিমলা স্পারটির পাশে ব্যাপক ঘূর্ণাবর্তের কারণে এ দশা হয়েছে। পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজীপুর, সদর ও শাহজাদপুরের কয়েকটি স্থানে ভাঙনও বেড়েছে।