‘সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে’র সময় শত শত কোটি ডলার আয় করেছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১

কথিত ‘সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধ’ চলাকালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী এবং অন্যান্য সরকারের সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে ‘বিগ টেক’ বা শীর্ষ তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো শত শত কোটি ডলার আয় করেছে। যুক্তরাষ্ট্রে নাইন-ইলেভেন হামলার ঘটনার ২০তম বার্ষিকীতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। সংবাদ সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম ফ্রান্স টোয়েন্টিফোর এ খবর জানিয়েছে।

অ্যাকশন সেন্টার অন রেস অ্যান্ড দ্য ইকোনমি, সোশ্যাল জাস্টিস গ্রুপ লিটলসিস ও এমপাওয়ার চেঞ্জ, এই তিন প্রতিষ্ঠান যৌথ উদ্যোগে গত বৃহস্পতিবার ‘বিগ টেক সেলস ওয়ার’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে অ্যামাজন, ফেসবুক, গুগল, মাইক্রোসফট ও টুইটার বিপুল অর্থ আয় করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে’ জড়িত কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোর সঙ্গে প্রযুক্তি সংস্থাগুলোর চুক্তি ছিল। ২০০৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত বিশেষ করে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন ও অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগের চাহিদা পূরণ ও পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমে বিপুল অর্থ আয় করেছে প্রযুক্তি খাতের বড় বড় কোম্পানিগুলো।

২০০১ সালের পর থেকে প্রতিরক্ষা শিল্প ডিজিটালাইজ করার চেষ্টা বাড়তে থাকে। এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার ক্লাউড কম্পিউটিং ও জিপিএস সফটওয়্যারের চাহিদা পূরণে শীর্ষ প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর সঙ্গে চুক্তি করে মার্কিন সরকার।

শুধু মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ ২০০৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ৪৩ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে।