শ্রমিক ছাঁটাই মরার ওপর খাঁড়ার ঘা : ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত: ৫:২৭ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২০

করোনা সংকটের মধ্যে শ্রমিক ছাঁটাই ‘মরার ওপর খাঁড়ার ঘা’-এর মতো পরিস্থিতি তৈরি করবে মন্তব্য করে বিজিএমইএসহ সংশ্লিষ্টদের বিষয়টির মানবিক দিক থেকে বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার সংসদ ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবন থেকে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এই মানবিক সংকটে কলকারখানা থেকে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের খবর পাওয়া যাচ্ছে। এটি হবে এই সময়ে মরার ওপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো। আমি বিজিএমইএসহ সংশ্লিষ্টদের বিষয়টি মানবিক দিক বিবেচনায় নিয়ে সমন্বয়ের আহ্বান জানাচ্ছি। অসহায় মানুষগুলো প্রতি ভালোবাসা আপনারা সহমর্মী-সমব্যথী হয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আশা রাখছি।’

‘এই শ্রমিকরা সুদিনে আপনাদের মুনাফা এনে দিয়েছে। আজ দুর্দিনে তাদের দুরে ঠেলে দিবেন, এটা হয় না। ছাঁটাইয়ে মতো অসন্তোষ উদ্বেগকারী সিদ্ধান্তে না যাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। আমি কারখানা মালিকদের প্রতি নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করে শ্রমিক-মালিক প্রতিনিধিরা এবং মন্ত্রণালয় এই ব্যাপারে বাস্তবসম্মত মানবিক সিদ্ধান্ত নেবেন, এটাই আশা করি।’

গণপরিবহনে দূরপাল্লার অভিযোগ না থাকলেও শহর এলাকায় ভাড়া বাড়ানোর কিছু অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মালিক শ্রমিকদের পাশাপাশি যাত্রীদের সচেতন হবার আহ্বান জানাচ্ছি। আপনারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, বাড়তি ভাড়া দেবেন না। পাশাপাশি মালিক শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। আপনারা বাড়তি ভাড়া নেবেন না। আপনাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবেন- এটাই আশা করি।’

খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ নেই

দেশের চাহিদার তুলনায় পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে কোনো উদ্বেগ নেই। পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ আছে। তবুও আসন্ন সংকট ও পরিস্থিতি মোকাবিলায় আবাদি জমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী চাষাবাদ করার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতি ইঞ্চি ভূমিকে চাষাবাদের আওতায় আনুন। বাড়িঘরের পাশের জায়গায় সবজি চাষ করুন। ঘরের ফসল বিপদে মনোবল বাড়াবে। শেখ হাসিনার নির্দেশে ঘরে ঘরে সুরক্ষাও সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলতে হবে।’

সংক্রমিত প্রবল এলাকা চিহ্নিত করে সরকার শিগগিরই কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘দেশে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি অস্থিতিশীল। এই অবস্থায় শেখ হাসিনর সরকার জনস্বার্থ ও জনস্বাস্থ্য রক্ষায় কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে এবং নিতে যাচ্ছে। সংক্রমিত প্রবল এলাকা চিহ্নিত করে শিগগিরই কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’