শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে কিশোর নিহতের ঘটনায় আটক কর্মকর্তাদের হাজতে প্রেরণ

প্রকাশিত: ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোর বন্দী খুনের ঘটনায় আটক তত্ত্বাবধায়কসহ তিন কর্মকর্তাকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার বিকেলে তাদেরকে যশোর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা যশোর চাঁচড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক রোকিবুজ্জামান জানান, জিজ্ঞাসাবাদে বন্দী নির্যাতন ও খুনের ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে। এ ব্যাপারে আরও অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের তাদের রিমান্ড আবেদন জানানো হবে।

রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো তিন কর্মকর্তা হলেন যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) আব্দুল্যা আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক (প্রবেশন অফিসার) মাসুম বিল্লাহ, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলম।

এর আগে রিমান্ডে নেওয়া কেন্দ্রের আরও দুই কর্মকর্তা সাইকো সোশ্যাল কাউন্সিলর মো. মুশফিকুর রহমান ও কারিগরি প্রশিক্ষক (ওয়েল্ডিং) ওমর ফারুককে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গেলো ১৩ আগস্ট যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নির্যাতনে নিহত হয় তিন বন্দী কিশোর ও আহত হয় আরও ১৫ জন। এ ঘটনায় পুলিশ ওই কেন্দ্রের পাঁচ কর্মকর্তাকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চালায়।

এদিকে, হত্যা নির্যাতনের ঘটনায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি আরও সাত দিন সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন জানিয়েছে। তবে সমাজসেবা অধিদফতর গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট আজ যে কোনো সময় সমাজসেবা অধিদফতর ঢাকার মহাপরিচালকের কাছে জমা হতে পারে। তদন্ত কমিটি সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।