ভারতে আমাকে ‘কালু’ ডাকা হতো: স্যামি

প্রকাশিত: ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ৭, ২০২০

শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে এক কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তির মৃত্যুর পর উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র। বিক্ষোভ আর সীমানা পেরিয়ে ছড়িয়ে গেছে বিশ্বজুড়ে। দিনের পর দিন বর্ণবিদ্বেষের শিকার হওয়া মানুষ এবার গর্জে উঠেছে বিশ্বের নানা প্রান্তে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলতে এসে এমনই বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ তারকা ড্যারেন স্যামি।

কয়েকদিন আগেই স্যামির সতীর্থ ক্রিস গেইল জানিয়েছেন ক্রিকেট খেলতে বিভিন্ন দেশে গিয়ে বর্ণবাদের শিকার হতে হয়েছে তাকে।
এবার স্যামি জানান, আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলার সময় তিনি এবং শ্রীলঙ্কান তারকা থিসারা পেরেরাকে উদ্দেশ্য করে গ্যালারি থেকে ভেসে এসেছিল বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য। তাদের দুইজনকে ‘কালু’ বলে ডাকা হয়েছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব জানান ক্যারিবিয়ানদের দুইবারের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক।

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে এই পেস অলরাউন্ডার লিখেন, ‘এখন বুঝেছি কালু শব্দের অর্থ। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে আইপিএল খেলার সময়ে গ্যালারি থেকে আমাকে আর পেরেরাকে ওই নামেই ডেকেছিল। আমি ভেবেছিলাম এর অর্থ শক্তিশালী ঘোড়া। আমি ক্ষুব্ধ।’
উইন্ডিজদের হয়ে ৩৮ টেস্ট, ১২৬ ওয়ানডে ও ৬৮ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন স্যামি। বর্তমানে ফ্রাঞ্চাইজি লিগ খেলে বেড়াচ্ছেন তিনি।
গেল ২৫ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে সতীর্থ ক্রিস গেইলের সঙ্গে প্রতিবাদ করেন স্যামিও।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বোর্ড (আইসিসি), ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটবোর্ডসহ সব ক্রিকেট বোর্ডের কাছে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।