ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখ ছাড়ালো

প্রকাশিত: ৮:২৯ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২০

দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা (আপ) সত্যেন্দ্র জৈন করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি।

ভারতের প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৬৬ হাজার ৯৪৬ জনে পৌঁছেছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২,২৩৭। গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৮৮১ জন আক্রান্ত এবং ৩৩৪ জন মারা গেছে। আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ৮ টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে ওই তথ্য জানা গেছে।সরকারি সূত্রে প্রকাশ, এপর্যন্ত ১ লাখ ৯৪ হাজার ৩২৫ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৩৯০।

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্য বরাবরই করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনায় সবার শীর্ষে রয়েছে। মহারাষ্ট্রে এপর্যন্ত ১ লাখ ১৬ হাজার ৭৫২ জন আক্রান্ত এবং ৫ হাজার ৬৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে ৩ হাজার ৩০৭ জন আক্রান্ত এবং ১১৪ জন মারা গেছে।

দ্বিতীয়স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে ৫০ হাজার ১৯৩ জন আক্রান্ত এবং ৫৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজধানী দিল্লিতে এপর্যন্ত ৪৭ হাজার ১০২ জন আক্রান্ত এবং ১ হাজার ৯০৪ জন মারা গেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাটে ২৫ হাজার ৯৩ জন আক্রান্ত এবং ১ হাজার ৫৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫০৬ জনে মারা গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যা ১১। রাজ্যটিতে এ পর্যন্ত ১২ হাজার ৩০০ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এদিকে, দিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা (আপ) সত্যেন্দ্র জৈন। জ্বর, শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে গত (সোমবার) রাতে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। প্রথম দফার পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও জ্বর না কমায় আরও একদফা করোনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। গতকালই করোনায় আক্রান্ত  হয়েছেন দিল্লির ‘আপ’বিধায়ক আতিশীও।

দিল্লির স্বাস্থ্য মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তার জায়গায় এবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সামলাবেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনিশ শিসোদিয়া। দিল্লি সরকারের তথ্যে প্রকাশ, ২৫ হাজার ২০ জন করোনা রোগী তাদের বাড়িতে রয়েছেন। এই লোকেরা তাদের বাড়িতে বিচ্ছিন্নভাবে জীবনযাপন করছে। তাদের কোনও নির্দিষ্ট শারীরিক সমস্যা নেই এবং করোনার লক্ষণও খুব কম।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৮১০ রোগী বর্তমানে দিল্লির বিভিন্ন হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি আছে এবং ২১৪ জনকে ভেন্টিলেটর সহায়তায় রাখা হয়েছে। এদিকে, বিহারে আরজেডি’র সিনিয়র নেতা ও সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রঘুবংশ প্রসাদ সিং (৭৫) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি পাটনার এইমস হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।