বৈশ্বিক ক্রমতালিকায় কনটেইনার পরিবহনে নয় ধাপ পিছিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

প্রকাশিত: ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২১

২০২০ সালে সারা বিশ্বের বন্দরগুলোর কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যা হিসাব করে ১০০টি বন্দরের তালিকা তৈরি করেছে লয়েড লিস্ট

এক বছরের ব্যবধানে বৈশ্বিক ক্রমতালিকায় কনটেইনার পরিবহনে নয় ধাপ পিছিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর। লন্ডনভিত্তিক শিপিংবিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো সংবাদমাধ্যম লয়েডস লিস্টে ব্যস্ত বন্দরগুলোর তালিকা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সোমবার (২৩ আগস্ট) রাতে তালিকাটি প্রকাশ করে সংস্থাটি।

২০২০ সালে সারা বিশ্বের বন্দরগুলোর কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যা হিসাব করে ১০০টি বন্দরের তালিকা তৈরি করেছে লয়েড লিস্ট। যদিও লয়েড লিস্টের তালিকায় বন্দরের সেবার মান বিবেচনায় নেওয়া হয় না।

লয়েড লিস্টের তথ্য অনুযায়ী, সারা বিশ্বে গত বছর ৬৩ কোটি ২০ লাখ একক কনটেইনার পরিবহন হয়েছে। এই সংখ্যা ২০১৯ সালের তুলনায় ০.০৭%। আর একই সময়ে চট্টগ্রাম বন্দরে কনটেইনার পরিবহন কমেছে ৮%।

সমুদ্র পথে দেশের কনটেইনার পরিবহনের ৯৮% এই চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে হয়। এতে একক বন্দর হিসেবে চট্টগ্রামের অবস্থান পিছিয়ে যাওয়ার মানে বৈদেশিক বাণিজ্যও কমে যাওয়া। একটানা সাত বছর বৈশ্বিক ক্রমতালিকায় এগিয়ে যাওয়ার পর এবারই ছন্দপতন ঘটল।

লয়েড লিস্ট ২০১৩ সাল থেকে বৈশ্বিক ক্রমতালিকা প্রকাশ করে আসছে। ২০১৩ সালে চট্টগ্রাম বন্দরের অবস্থান ছিল ৮৬তম। এরপর টানা সাত বছর এগিয়ে গেছে এই বন্দর। এবারই প্রথম ছন্দপতন ঘটল। -ইউএনবি