বিদেশি ভ্রমণকারীদের কোভিড টিকা বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

প্রকাশিত: ৬:৪২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে পা রাখতে হলে প্রায় সব বিদেশি নাগরিকের কোভিড টিকার সম্পূর্ণ ডোজ নেওয়া থাকতে হবে—মার্কিন সরকার এমন বাধ্যবাধকতা চালু করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক হোয়াইট হাউস কর্মকর্তা একাধিক সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, বাইডেন প্রশাসন আন্তর্জাতিক দর্শনার্থীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ পুনরায় চালু করতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে ধাপে ধাপে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছে। তবে, এই সিদ্ধান্ত কত দিনের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে, সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

করোনার ডেলটা ভ্যারিয়্যান্ট ছড়িয়ে পড়ার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে সম্প্রতি কোভিড সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী দেখা গেছে। বিশেষ করে যারা টিকা নেয়নি, তাদের মধ্যে আক্রান্তের হার বেশি ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান কোভিড বিধিনিষেধ অনুযায়ী—বেশির ভাগ আন্তর্জাতিক দর্শনার্থীর দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

সর্বপ্রথম ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে চীনের ওপর ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর থেকে এই নিষেধাজ্ঞার আওতা বেড়েছে। বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক নন এমন কোনো ব্যক্তি যদি সম্প্রতি যুক্তরাজ্য, ইউরোপের ২৬টি শেনগেনভুক্ত দেশের কোনো একটি, ব্রাজিল, আয়ারল্যান্ড, ভারত, ইরান বা দক্ষিণ আফ্রিকা ভ্রমণ করে থাকে, তার ক্ষেত্রেও যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

তবে, যারা যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণের অনুমতি পাচ্ছে, তাদের ভ্রমণের আগের তিন দিনের মধ্যে কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হচ্ছে।

গত সপ্তাহে হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব জেন সাকি বলেছিলেন, করোনার সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ ‘চলমান ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখবে’। যদিও এয়ারলাইন্স ও পর্যটন শিল্প সংশ্লিষ্টরা এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা স্থানীয় সময় বুধবার জানান, মার্কিন কর্তৃপক্ষ আন্তর্জাতিক ভ্রমণ ‘নিরাপদ ও টেকসইভাবে’ পুনরায় শুরু করতে চাচ্ছে, এবং তারা চায় ‘কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণেচ্ছু সব দেশের বিদেশি নাগরিক যেন সম্পূর্ণভাবে ভ্যাকসিনেটেড’ বা টিকা নেওয়া থাকেন।

যুক্তরাষ্ট্রে ৭০ শতাংশের বেশি মানুষ এরই মধ্যে অন্তত এক ডোজ টিকা নিয়েছে। তবে, তা সত্ত্বেও দেশটির বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে কোভিড সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী। এর মধ্যে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যায় রেকর্ড হয়েছে বলে জানাচ্ছেন সেখানকার কর্মকর্তারা।

যুক্তরাষ্ট্রের অনেক অঞ্চল এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আবারও খোলা জায়গায় মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা জারি করে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।