কৃষকলীগের কর্মসূচিতে প্রধানমন্ত্রী

‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশের অভ্যুদয় ধ্বংস করা’

প্রকাশিত: ২:৪৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০২১
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মূল লক্ষ্যই ছিল বাংলাদেশের অভ্যুদয়কে ধ্বংস করা। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বার বার পুরস্কৃত করেছে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার সরকার।

আজ রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে স্বেচ্ছায় রক্তদান ও প্লাজমা দান কর্মসূচির উদ্‌বোধন করে এ কথা বলেন। শোকের মাসে জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আওয়ামী কৃষকলীগ এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

১৫ আগস্ট শোকাবহ ঘটনাবলীর স্মৃতিচারণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূল লক্ষ্যই ছিল বাংলাদেশের অভ্যুদয় ধ্বংস করা। সে কারণে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের নামটি পরিবর্তন করে ইসলামিক বাংলাদেশ নামকরণ করা হয়েছিল। যদিও তারা শেষ পর্যন্ত সেটি টেকাতে পারেনি।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার বিচার কাজ শুরু করি। আমাদের পরে খালেদা জিয়া সরকারে এসে সে বিচারকাজটি শুধু বন্ধই করে দেয়নি, অনেক আসামিকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দেয়। কাউকে আবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চাকরি দেয়। একজন আসামি মারা গিয়েছিল। সেই মৃত ব্যক্তিকেও পদোন্নতি দিয়ে তাকে অবসরভাতা দিয়ে পুরস্কৃত করেছিল খালেদা জিয়ার সরকার।

শোকাবহ আগস্টের প্রথম দিন আজ। শোকাবহ আগস্টে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম এবং বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক সংগঠনগুলো যথাযোগ্য মর্যাদা, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও ভাবগম্ভীর আর বেদনাবিধূর পরিবেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন করবে।

তবে, এবার জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি সীমিত পরিসরে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।