প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ সত্ত্বেও করোনাভাইরাস কেড়ে নিলো ঢাবি শিক্ষকের জীবন

প্রকাশিত: ২:৫৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ১, ২০২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস কেড়ে নিলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক শাকিল উদ্দিন আহমেদের জীবন। তিনি রোববার রাত সোয়া ৮টার দিকে ঢাকার গ্রীন লাইফ হাসপাতালে মারা যান।

তিনি ওই হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, “আমরা খুবই শোকাহত, আমাদের একজন শিক্ষক আজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলেন।”

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথম কর্মরত কোনো শিক্ষক মারা গেলেন। দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ইতোমধ্যে ছয়শ ছাড়িয়েছে।

অধ্যাপক শাকিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হলের পাশে শিক্ষকদের কোয়ার্টার অধ্যাপক আবুল খায়ের ভবনে থাকতেন।

প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেন,“আইসিইউ, ভেন্টিলেশন আর সকল ধরণের চিকিৎসা সুবিধার সাথে তাকে তিন দিন আগে প্লাজমা থেরাপিও দেওয়া হয়েছিলো। তারপরও বাঁচানো সম্ভব হয়নি।”

কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় সুস্থ হওয়া ব্যক্তিদের দেহ থেকে রক্তরস বা প্লাজমা নিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির দেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ বাংলাদেশেও সম্প্রতি শুরু হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির দেহে এন্টিবডি তৈরি হয়ে তা সেরে ওঠায় বড় ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তবে সম্প্রতি চট্টগ্রামে প্লাজমা থেরাপি নেওয়া এক কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু ঘটে।