প্রাণঘাতী করোনা কেড়ে নিলো প্রথিতযশা চিকিৎসক অধ্যাপক এসএএম গোলাম কিবরিয়ার জীবন

প্রকাশিত: ১২:৪৬ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২০

করোনাভাইরাসের কাছে হার মানলেন চিকিৎসক অধ্যাপক এসএএম গোলাম কিবরিয়া (৭২)। চিকিৎসা সেবার অগ্রদূত ডা. কিবরিয়া ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটের (শুক্রবার ০০.৪০ মিনিট) দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

ডা. কিবরিয়ার ভাতিজা নাজমুল করিস ভূঞা সুমন জানান, ঈদুল ফিতরের দিন থেকে তার জ্বরসহ একাধিক করোনা উপসর্গ দেখা দেয়। পরবর্তীতে নমুনা পরীক্ষার পর কোভিড-১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বুধবার দুপুরে শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

তিনি আরও জানান, চাচার ফুসফুসে সংক্রমণের হার ছিলো প্রকট। তাঁকে শতভাগ অক্সিজেন দেয়া হচ্ছিলো। কিন্তু তার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৫০ শতাংশের বেশি বাড়েনি।

ডা. কিবরিয়া ঢাকা শমরিতা হাসপাতালে কর্তব্যরতো ছিলেন। এর আগে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজে ইউরোলজি বিভাগের প্রধান হিসেবে কর্মরতো ছিলেন।’

উল্লেখ্য, ডা. কিবরিয়ার ভাতিজা নাজমুল করিস ভূঞা সুমন পরিবারের বরাত দিয়ে আরও জানান, ১৯৪৮ সালে ফেনী পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডে ঐতিহ্যবাহী মনির উদ্দিন ভূঞা দারোগা বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন ডা. এসএএম গোলাম কিবরিয়া। ১৯৭৩ সালে তিনি সিলেট মেডিকেল কলেজ হতে এমবিবিএস ও ১৯৭৯ সালে এফসিপিএস সম্পন্ন করেন। দীর্ঘ চার দশকেরও বেশি সময় ধরে সিলেট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, মিটফোর্ড হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউরোলজী বিভাগের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া তিনি বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠনের সাথেও সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব ইউরোলজিকাল সার্জনস এর প্রেসিডেন্ট হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি ছিলেন একাধারে বাংলাদেশ জার্নাল অব ইউরোলজীর সম্পাদক, সার্ক ইউরোলজি এবং নেফ্রোলজির কোষাধ্যক্ষ, বাংলাদেশ মেডিকেল কাউন্সিলের সদস্য, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের আজীবন সদস্য, বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান এন্ড সার্জন (বিসিপিএস) এর পরীক্ষক কমিটির চেয়ারম্যান, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য, বিএমডিসির বর্তমান কমিটির চেয়ারম্যান।