প্রতিশোধ না, চাই সমতা ও শ্রদ্ধা : ব্রাভো

আশফাক ইমরান

প্রকাশিত: ৯:৫৯ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২০

মিনিয়াপোলিসে পুলিশি নির্যাতনে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদের যে ঝড় উঠেছে তাতে সামিল হয়েছেন অনেক নামীদামী তারকারা। দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি ও ক্রিস গেইলরা প্রকাশ্যে প্রতিবাদ করেছেন। এবার তাদের আরেক সতীর্থ ডোয়াইন ব্রাভোও একাত্মা ঘোষণা করলেন। তবে কোনো প্রতিশোধ বা যুদ্ধ চান না এ তারকা, কেবল নিজেদের প্রাপ্য ও সম্মান প্রত্যাশা করছেন ৩৬ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডার।

সম্প্রতি সাবেক জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার পমি এমবাংওয়ার সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে ব্রাভো বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে আমরা দেখতে পাচ্ছি সারা বিশ্বে কি হচ্ছে। একজন কালো মানুষ হিসেবে আমি জানি কীভাবে একজন কালো মানুষ জীবন যাপন করে। আমরা কখনোই প্রতিশোধ চাইনি, আমরা সমতা ও শ্রদ্ধা চাই। এটাই।’

অন্যকে যথাযথ সম্মান দেওয়ার পরও নিজেদের প্রতি অসম্মানটা মানতে পারছেন না উইন্ডিজের হয়ে ৪০টি টেস্ট, ১৬৪টি ওয়ানডে ও ৭১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা ব্রাভো, ‘আমরা অন্যদের সম্মান দেই। তারপরও কেন আমরা বার বার এমন কিছুর মুখোমুখি হব? এখন অনেক হয়েছে, অনেক। আমরা শুধু সমতা চাই। আমরা প্রতিশোধ কিংবা যুদ্ধ চাই না। আমরা শুধু শ্রদ্ধা চাই। আমরা ভালোবাসি এবং তারা যারা তাদের জন্য প্রশংসা করুন। এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

বর্ণবাদের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন লড়াই করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট নেলসন মেন্ডেলা। কদিন আগেই এ লড়াইয়ে ১০০ মিলিয়ন পাউন্ড অনুদান দিয়ে সামিল হয়েছেন মাইকেল জর্ডানের মতো বাস্কেটবল কিংবদন্তি। তাদের অনুপ্রেরণা মেনেই একটি সুন্দর পৃথিবী যান ব্রাভো, ‘আমি চাই আমার ভাই এবং বোনেরা জানুক আমরা শক্তিশালী এবং সুন্দর। দিন শেষে, আপনি পৃথিবীতে অনেক গ্রেটদের দেখবেন যেমন নেলসন মেন্ডেলা, মোহাম্মদ আলী, মাইকেল জর্ডানদের মতো নেতা পেয়েছি যারা আমাদের জন্য পথটা প্রশস্ত করে দিয়েছে।’

কদিন আগে তার সতীর্থ স্যামি জানিয়েছেন, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএলে) সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলার সময় ‘কালু’ বলে ডাকা হয়েছিল তাকে ও থিসারা পেরেরাকে। এর প্রমাণও ভাইরাল হয়ে গেছে সামাজিক মাধ্যমে। আরেক সতীর্থ গেইলও বলেছেন, ক্যারিয়ারে অনেক জায়গায় অনেকবার বর্ণবাদের স্বীকার হয়েছেন।