নিয়মিত দুধ পানের ১০ উপকারিতা

প্রকাশিত: ১০:২০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২০

দুধ হচ্ছে সুপার ফুড বা সর্বগুণ সম্পন্ন খাবার। দুধের পুষ্টিগুণ আপনাকে সুস্থ, সবল ও নিরোগ রাখবে। প্রতিদিন ঘুমের আগে সব বয়সের মানুষের এক কাপ বা এক গ্লাস দুধ খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়ে থাকে।

দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারে রয়েছে ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ফসফরাস, প্রোটিন, ভিটামিন-এ, ভিটামিন-ডি, ভিটামিন বি-১২, নিয়াসিন ও রিবোফ্লাভিন।

অনেকে মনে করেন দুধ খেলে ওজন বেড়ে যায়। তবে এটি মোটেও ঠিক নয়। দুধ খেলে ওজন কমে এবং ঘুমও ভালো হয়। সব বয়সী মানুষের জন্য দুধ খাওয়ার নিয়ম এক হলেও কিডনি ও ডায়াবেটিসের রোগীরা প্রতিদিন কতটুকু দুধ খাবেন তা চিকিৎসকের কাছ খেতে পরামর্শ নেবেন।

আসুন জেনে নিই দুধ পানের উপকারিতা-

১. অ্যাসিডিটি, পিরিয়ডের তীব্র ব্যথা, কাজের স্ট্রেস, কোষ্ঠকাঠিন্য ও কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে প্রতিদিন দুধ পান করুন। এই খাবার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।

 

২. দুধে থাকা ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন-ডি হাড় ও দাঁতের ক্ষয়রোধ করে ও দাঁত মজবুত করে।

 

৩. প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ পানে শরীরে বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি চাহিদা পূরণ হয়। আর ওজন কমাতে চাইলে প্রতিদিন খাদ্যতালিকায় দুধ রাখুন।

 

৪. দুধে থাকা ভিটামিন ও মিনারেল ফিটনেস বাড়ায় ও মানসিক চাপ কমায় এবং ঘুম ভালো হয়।

 

৫. দুধ শরীর রি-হাইড্রেট করতে সাহায্য করে। ডিহাইড্রেশনের সমস্যায় ভুগলে এক গ্লাস দুধ পান করুন।

 

৭. শিশুদের মাংসপেশির গঠন উন্নত করতেও প্রতিদিন দুধ পান করা উচিত।

 

৮. প্রতিদিন এক কাপ দুধ পান করলে পাকস্থলী ঠাণ্ডা থাকে ও বুক জ্বালাপোড়া দূর হয়।

 

৯. দুধে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল, যা শরীরের ইমিউন সিস্টেম উন্নত করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

 

১০. প্রতিদিন দুধ পানে ত্বক নরম, কোমল ও মসৃণ হয়। দুধ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ, রক্ত পরিষ্কার ও রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়