নন সিগনিফিকেন্ট পারসনের জন্য গোটা প্রতিষ্ঠানকে কলুষিত করা যাবে না

প্রকাশিত: ২:১৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত

গতকাল শনিবার আওয়ামী লীগের আয়োজনে মহামারী ও পরবর্তী বাংলাদেশ নিয়ে ওয়েবনিয়ার ‘বিয়ন্ড দ্য প্যানডেমিক’-এর সপ্তম পর্ব ‘জনস্বাস্থ্য ও স্থানীয় সরকার’ শিরোনামের আলোচনায় যোগ দিয়ে স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী নভেল করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে দুর্গতদের সহায়তায় সরকারের দেওয়া ত্রাণ আত্মসাতের ঘটনায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের গ্রেপ্তার-বহিষ্কার নিয়ে কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন- ‘এ সমাজে যে অবক্ষয় অবস্থার মধ্য দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের উত্থান হয়েছে, সে কারণে সবাই কমবেশি কলুষিত। এ থেকে বের হয়ে আসতে গেলে তাঁদের সম্মান দিতে হবে। তাঁদের সম্মানিত স্থানে আসীন করতে হবে। মেম্বার পদটাকে যদি আমরা একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচনা করি, ৬২ হাজার জনপ্রতিনিধির মধ্যে নন সিগনিফিকেন্ট পারসনের জন্য আমি গোটা প্রতিষ্ঠানকে কলুষিত করতে পারি না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন, আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নে ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বারদেরও সবচেয়ে সক্ষম প্রতিষ্ঠান,’ বলেও দাবি করেন তাজুল ইসলাম।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদের সঞ্চালনায় এ ভার্চুয়াল আলোচনায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী জনাব মো. তাজুল ইসলাম, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান (লিটন), নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটুও ছিলেন।

এসময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান (লিটন), নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নিজেদের উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন।