ধোনিকে গ্র্যান্ড ফেয়ারওয়েল দেওয়ার ভাবনা বিসিসিআইয়ের

প্রকাশিত: ৯:২৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০২০

মহেন্দ্র সিং ধোনির জন্য বড় করে ফেয়ারওয়েল ম্যাচ আয়োজনের কথা ভাবছে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আইপিএলের পর যেকোনো সময় ধোনির জন্য ঘরের মাঠে একটি বিদায়ী ম্যাচ আয়োজন করা হতে পারে।

গত ১৫ আগস্ট ধোনি অবসর নেওয়ার দিনেই ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন দাবি করেন, রাঁচিতে ধোনির জন্য ফেয়ারওয়েল ম্যাচ আয়োজনের। তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিসিসিআইয়ের কাছে এমন অনুরোধও করেন।

বিসিসিআই আশা করেনি হঠাৎ করেই অবসরে ধোনি। বিসিসিআইয়ের এক সিনিয়র কর্মকর্তা এ ব্যাপারে বলেন, ‘এই মুহূর্তে কোনো আন্তর্জাতিক সিরিজ নেই। আইপিএলের পর আমাদের চেষ্টা থাকবে একটা ফেয়ারওয়েল ম্যাচ বা সিরিজ আয়োজন করার। কারণ ধোনি দেশের জন্য অনেক কিছু করেছেন। তাঁর এই সম্মান প্রাপ্য। আমরা সবসময় ভেবে এসেছি ধোনির জন্য ফেয়ারওয়েল ম্যাচ আয়োজনের কথা। তবে ধোনি অন্য ধরনের ক্রিকেটার। তিনি এমন সময় অবসর নিয়েছেন, যা কেউ আশা করেনি।’

গত শনিবার ভারতের স্বাধীনতা দিবসের দিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চার মিনিটের একটি ভিডিও আপলোড করে অবসরের ঘোষণা দেন ভারতের হয়ে দুটি বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ক।

ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে ধোনি লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ। সারা জীবন যে ভালোবাসা এবং সমর্থন পেয়েছি এর জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। সন্ধ্যা ৭টা ২৯ মিনিট থেকে আমাকে অবসরপ্রাপ্ত হিসেবে বিবেচনা করতে পারেন।’

গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের পর থেকেই ধোনি জাতীয় দলের বাইরে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে হোম-অ্যাওয়ে সিরিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দলের বাইরে ছিলেন তিনি। তখনই তাঁর অবসর নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে যায়।

বেশ কিছুদিন আগে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েন ধোনি। জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক যিনি দেশকে দুবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পাইয়ে দিয়েছেন, তিনি বোর্ডের চার ধরনের চুক্তিতে জায়গা পাননি।

২০০৭ সালে টি-টোয়েন্ট বিশ্বকাপ এবং ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ভারতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন ধোনি।