দেশে রাষ্ট্রীয় অনাচার চলছে: রিজভী

প্রকাশিত: ৬:৪০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২০
বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে চলছে রাষ্ট্রীয় অনাচার। আজকে কারো কোনো নিরাপত্তা নেই। সুতরাং অনাচারের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে। প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির এ নেতা এসব কথা বলেন। জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘শহীদ জিয়ার রাজনৈতিক দর্শন, ধর্মীয় মূল্যবোধ ও আজকের প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘আজকে সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থা যারা দখল করে বসে আছে তাদের দিয়ে ১২ বছরে আলেম-ওলামাদের নানাভাবে নিপীড়ন করা হয়েছে। বিশেষ করে হেফাজতের আন্দোলনের সময়। নিষ্ঠুর আচরণে মানুষ বিপন্ন। বাড়িতে থাকতে ভয় পাচ্ছে। রাস্তায় চলতে ভয় পায়।’

‘সিলেটের এমসি কলেজে নারী ধর্ষণের ঘটনায় প্রমাণিত হয় যেন আদিম যুগ ফিরে এসেছে। তারপর নোয়াখালীর একলাশপুরে নারীর ওপর বীভৎস নিপীড়ন করা হলো। আর আওয়ামী লীগের এমপি-মন্ত্রীরা বিএনপিকে দোষারোপ করছে।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘অপরাধীদের বিরুদ্ধে নিপীড়ত পরিবার মুখ খুলতে ভয় পাচ্ছে। পুলিশও নিশ্চুপ। তাহলে বুঝেন কোন ধরনের শাসন ব্যবস্থা কায়েম হয়েছে? কারণ এ ধরনের অপরাধীদের আশ্রয় দিয়ে লালন করছে রাষ্ট্র ও সরকার। এই হচ্ছে জনগণের পাশে আওয়ামী লীগের থাকার নমুনা! অথচ বিএনপি একটি মিছিল করুক টপাটপ গ্রেপ্তার করে। বড় কোনো কিছু করুক তখন গোয়েন্দা অভিযান চালায়। এখানে তারা খুব নৈপূণ্য দেখায়। আপনারা শোনেননি, সাংবাদিক সাগর-রুনির হত্যার বিচার প্রশ্নে তারা বলেছিল, সরকার কি বেডরুম পাহারা দেবে?’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, সরকার একটা অপকর্ম দিয়ে আরেকটি ঢাকার চেষ্টা করছে। এখন উলফার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত জড়িত থাকার খবর রটানো হচ্ছে। এ দিয়ে জনগণের দৃষ্টি ভিন্নদিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।