ঢাকা, সোমবার ১১ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

দেশে করোনাভাইরাসে মৃতদের ৭৯ ভাগ পুরুষ


প্রকাশিত: ১২:৩৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া ৭৯.০৯ ভাগ পুরুষ এবং ২০.৯১ ভাগ নারী।
গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান। খবর ইউএনবি

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১ জনসহ মোট মারা গেছেন দুই হাজার ২৩৮ জন। তার মধ্যে এক হাজার ৭৭০ জন পুরুষ। শতকরা হার ৭৯.০৯ ভাগ। এ ছাড়া ৪৬৮ জন নারী মারা গেছেন। মৃতের হার ২০.৯১ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় লিঙ্গ বিবেচনায় পুরুষ ২৯ জন এবং নারী ১২ জন মারা গেছেন। এ পর্যন্ত বয়স বিবেচনায় মৃতের হার ০-১০ বছর বয়সী ১৪ জন (০.৬৩ শতাংশ), ১১-২০ বছর বয়সী ২৬ জন (১.১৬ শতাংশ), ২১-৩০ বছর বয়সী ৭৩ জন (৩.২৬ শতাংশ), ৩১-৪০ বছর বয়সী ১৫৯ জন (৭.১০ শতাংশ), ৪১-৫০ বছর বয়সী ৩২৭ জন (১৪.৬১ শতাংশ), ৫১-৬০ বছর বয়সী ৬৫০ জন (২৯.০৪ শতাংশ) এবং ষাটোর্ধ্ব বয়সী ৯৮৯ জন (৪৮.১৯ শতাংশ)।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫ হাজার ৬৩২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯ লাখ চার হাজার ৭৮৪টি। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে তিন হাজার ৩৬০ জনের। এ পর্যন্ত শনাক্ত এক লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় তিন হাজার ৭০৬ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৮৪ হাজার ৫৪৪ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১.৪৯ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯.৪০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮.১৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় বয়স বিবেচনায় মৃতের সংখ্যা ০-১০ বছর বয়সী একজন, ১১-২০ বছর বয়সী একজন, ৩১-৪০ বছর বয়সী দুজন, ৪১-৫০ বছর বয়সী তিনজন, ৫১-৬০ বছর বয়সী ১১ জন, ৬১-৭০ বছর বয়সী ১২ জন, ৭১-৮০ বছর বয়সী ৯ জন এবং ৮১-৯০ বছর বয়সী দুজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৪ জন, রাজশাহীতে দুজন, খুলনায় ছয়জন, ময়মনসিংহ বিভাগে দুজন, সিলেটে দুজন এবং রংপুরে তিনজন মারা গেছেন।

এ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে এক হাজার ১২৮ জন, চট্টগ্রামে ৫৮৫ জন, রাজশাহী বিভাগে ১১২ জন, খুলনায় ১১২ জন, বরিশালে ৮১ জন, সিলেটে ৯৭ জন, রংপুরে ৬৯ জন এবং ময়মনসিংহে ৫৪ জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে দুই হাজার ৭৪১ জন, চট্টগ্রামে ৪২০, রংপুরে ৬৮, খুলনায় ১০৮, বরিশালে ৯৮, রাজশাহী বিভাগে ১৯২, সিলেটে ৬৬ এবং ময়মনসিংহে ১৩ জন সুস্থ হয়েছেন।