‘টিকা ছাড়া চলাফেরা অপরাধ’, মন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার

প্রকাশিত: ৯:১১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০২১
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক- ফাইল ছবি।

টিকা ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ ১১ আগস্টের পর বাইরে বের হলে তা অপরাধ হবে- এমন বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। আজ বুধবার মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সুফি আব্দুল্লাহিল মারুফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘প্রত্যেক নাগরিককেই পর্যায়ক্রমে ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। তবে টিকা নেওয়া ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ ১১ আগস্টের পর হতে বাইরে বের হতে পারবে না মর্মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে মন্ত্রীর যে বক্তব্য প্রচার হচ্ছে বক্তব্যের সে অংশটুকু প্রত্যাহার করেছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।’

 

গতকাল মঙ্গলবার সরকারের উচ্চপর্যায়ের এক বৈঠকে করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বগতি রোধে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ আরও পাঁচ দিন বাড়িয়ে আগামী ১০ আগস্ট পর্যন্ত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

এ সময় সচিবালয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক গণমাধ্যমকে বলেন, আগামী ১১ আগস্ট থেকে দোকানপাটসহ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে এবং কেউ কর্মস্থলে আসতে চাইলে টিকা নিয়ে আসতে হবে।

 

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘ভ্যাকসিন ছাড়া ১৮ বছরের বেশি বয়সের কোনো মানুষ মুভমেন্ট করলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হবে। দরকার হলে অধ্যাদেশ জারি করেও শাস্তি দেওয়া হতে পারে। যেহেতু এখন সংসদ অধিবেশন নেই, তাই অধ্যাদেশ জারি করা হতে পারে।’

 

মন্ত্রী আরও বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সাত দিনে এক কোটি মানুষকে ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করেছে। সুতরাং ভ্যাকসিন ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ রাস্তায় বের হলে শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

 

এ নিয়ে গণমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতেই গভীর রাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিষয়টি নিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। যাতে বলা হয়, এ ধরনের তথ্য সঠিক না।

 

এখন মন্ত্রী নিজেই তাঁর সেই বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিলেন।