গৃহকর্মী নিয়োগে আদালতের ৬ নির্দেশনা

প্রকাশিত: ৭:১৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২০
বাংলাদেশের হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

বাসায় গৃহকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে সতর্কতার জন্য ৬ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত। রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যা মামলায় গৃহকর্মী স্বপ্না ও রেশমার ফাঁসির রায়ের পর পর্যবেক্ষণে এসব নির্দেশনা দেন আদালত।

এসব নির্দেশনা হলো: প্রথমত, বাসা বাড়িতে নতুন গৃহকর্মী নিয়োগের পর অন্তত ৯০ দিন পর্যবেক্ষণে রাখতে হবে। তারা কোনো অন্যায় করলে মারধর না করে কাছের থানা বা সমাজসেবা কর্মকর্তাকে অবহিত করতে হবে। দ্বিতীয়ত, গৃহকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে তার বিস্তারিত তথ্য, ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি রাখতে হবে। যার একটি কপি কাছের থানায় জমা দিয়ে রাখতে হবে। তৃতীয়ত, বাসার মূল গেটে সিসি ক্যামেরা না থাকলে ক্যামেরা স্থাপন করতে হবে। চতুর্থত, অন্য কোনো গৃহকর্মীর মাধ্যমে গৃহকর্মী নিয়োগ করলে যার মাধ্যমে নেওয়া হচ্ছে তারও বিস্তারিত তথ্য রাখতে হবে এবং থানায় জমা দিতে হবে। পঞ্চমত, কোনো সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গৃহকর্মী নিয়োগ করলে সেই প্রতিষ্ঠান সম্পর্কেও তথ্য রাখতে হবে। ওই প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স না থাকলে সংশ্লিষ্ট থানাকে অবহিত করতে হবে। ষষ্ঠত, গৃহকর্মী সরবরাহ প্রতিষ্ঠানকেও গৃহকর্মীর ছবি রাখতে হবে এবং এর একটি কপি সংশ্লিষ্ট থানায় দিতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর এলিফেন্ট রোডের নিজ বাসায় খুন হন মাহফুজা চৌধুরী। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ইসমত কাদির গামা মামলা দায়ের করেন। হত্যা মামলায় গৃহকর্মী স্বপ্না ও রেশমার ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। হত্যাকাণ্ডের দেড় বছরের মাথায় শেষ হলো বিচারপ্রক্রিয়া।