কেন্দ্রীয়ভাবে না নিয়ে স্কুলে স্কুলে পিইসি পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তাব

প্রকাশিত: ৯:১১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০

এ বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী-পিইসি ও ইবতেদিয়া পরীক্ষায় প্রায় ২৯ লাখ শিক্ষার্থীর অংশ নেয়ার কথা। কিন্তু মহামারির প্রকোপে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় নভেম্বরে নির্ধারিত পরীক্ষা হওয়া নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা।

এ অবস্থায় পরীক্ষা কীভাবে বা কবে নেয়া হবে এ নিয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ৪টি প্রস্তাব পাঠিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে। এরমধ্যে কেন্দ্রীয়ভাবে পিইসি পরীক্ষা না নিয়ে সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তাবে গুরুত্ব দিচ্ছে মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন জানিয়েছেন, সেপ্টেম্বরে স্কুল খুললে এক ধরণের পরিকল্পনা, অক্টোবরে স্কুল খুললে আরেক ধরনের পরিকল্পনা। আবার করোনা পরিস্থিতির কারণে নভেম্বর-ডিসেম্বরেও যদি স্কুল না খুলে তাহলে অন্য বিকল্প উপায়গুলোও ভেবে রেখেছি আমরা। তবে কেন্দ্রীয়ভাবে এবার পরীক্ষা না নিয়ে স্কুলে স্কুলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেয়ার সুপারিশ করেছি আমরা।

শেষ পর্যন্ত পিইসি পরীক্ষা কীভাবে, কোন সিলেবাসে হচ্ছে সেটি পুরোপুরি নির্ভর করছে করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতির ওপর। অবস্থা বুঝে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা হতে পারে। প্রস্তাব আছে অটো পাসেরও। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব আকরাম- আল-হোসেন বলেন, গোটা বিষয়টি নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর। আমরা একাধিক বিকল্প প্রস্তাব করেছি।

পিইসি পরীক্ষা না হলে এর ভিত্তিতে এ বছর বৃত্তিও দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।