কুখ্যাত মাফিয়া ‘বিকাশ দুবে’ এনকাউন্টারে নিহত

প্রকাশিত: ২:৩৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০

মধ্যপ্রদেশ থেকে গ্রেফতার করে কানপুরে নিয়ে আসার সময় পুলিশের হাত থেকে পালানোর চেষ্টা করায় এনকাউন্টারে মৃত্যু হয়েছে উত্তরপ্রদেশের ত্রাস বিকাশ দুবের।

জানা গেছে, যে গাড়িতে করে ভারতের এ কুখ্যাত মাফিয়াকে নিয়ে আসা হচ্ছিল সেটি হঠাৎ মাঝপথে উল্টে যায় এবং সুযোগ বুঝে তখনই সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করে সে। সে সময়ই পুলিশের চালানো গুলিতে মারা যায় ওই দুষ্কৃতি।
বৃহস্পতিবারই মধ্যপ্রদেশের মহাকাল মন্দির থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। গত সপ্তাহে আট পুলিশ কর্মীকে হত্যা করেছিলেন তিনি। তারপর থেকেই তার খোঁজে উত্তরপ্রদেশসহ আশেপাশের রাজ্যগুলো ছুটে বেড়াচ্ছিল পুলিশ। শেষপর্যন্ত বৃহস্পতিবার উজ্জয়নের মহাকাল মন্দিরে প্রার্থনা করার জন্যে ওই কুখ্যাত মাফিয়া সেখানে এলে তখনই পুলিশের জালে ধরা পড়েন তিনি।
তবে পাঁচ দিনের মধ্যে কীভাবে পুলিশকে এড়িয়ে বিকাশ দুবে হরিয়ানা থেকে রাজস্থান হয়ে মধ্যপ্রদেশে যেতে পেরেছিলো, তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে।
গত শুক্রবার খুন, অপহরণসহ ৬০টি মামলায় অভিযুক্ত বিকাশ দুবেকে গ্রেফতার করার জন্যেই কানপুরের চৌবেপুর এলাকার বিকরু গ্রামে বিশাল একটি পুলিশ দল অভিযান চালায়। সেই সময়েই পাল্টা আক্রমণে করে ওই মাফিয়া। তার চালানো গুলিতে মৃত্যু হয়িআট পুলিশ কর্মীর। তারপরেই এলাকা ছেড়ে চম্পট দেন তিনি। পুলিশ কর্মীদের হত্যা করে তিনি গা-ঢাকা দিলেও তার খোঁজে চিরুনি তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। এমনকী বিকাশের মাথার দাম ঘোষণা করা হয় পাঁচ লাখ টাকা।
তারপর গত মঙ্গলবার পুলিশ খবর পায়, দিল্লি-মথুরা হাইওয়ের উপর ফরিদাবাদের বাধকাল এলাকার একটি হোটেলে লুকিয়ে আছে বিকাশ দুবে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওইদিন রাতেই সেই হোটেলে হানা দেয় এসটিএফের দল। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের প্রায় ৩০-৩৫ জন অফিসার সাধারণ পোশাকে এই রেড চালায়। তবে পুলিশ পৌঁছনোর আগেই সেই তল্লাট থেকে গা-ঢাকা দেন ওই কুখ্যাত অপরাধী। কিন্তু বৃহস্পতিবার আর কোনোভাবেই পুলিশের জাল কেটে বেরোতে পারেননি তিনি।