করোনা সংক্রমণ রোধে দেশের যেসব এলাকায় চলছে কঠোর লকডাউন

প্রকাশিত: ৯:০৫ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২০

করোনাভাইরাস মহামারির পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানীর প্রথম এলাকা হিসেবে পরীক্ষামূলকভাবে পূর্ব রাজাবাজারে পুরোদমে কার্যকর করা হয়েছে লকডাউন। জরুরি সেবায় নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মী আর সংবাদকর্মী ছাড়া এলাকাটি থেকে কাউকেই বের হতে দেয়া হচ্ছে না।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় বান্দরবানের সদর ও রোমা উপজেলা লকডাউন ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। এরপর থেকেই জোরদার করা হয় পুলিশ ও সেনা টহল।

এসব এলাকায় ওষুধের দোকান ব্যতীত সবধরণের দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

তবে সপ্তাহে রবিবার ও বৃহস্পতিবার কাঁচাবাজার ও মুদি দোকান সীমিত আকারে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। অন্যদিকে নোয়াখালীর সদর ও বেগমগঞ্জ উপজেলায় চলছে দ্বিতীয় দিনের মতো লকডাউন। কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট।

এদিকে, প্রত্যাহার করা হয়েছে নারায়ণগঞ্জের ৩টি এলাকায় পরীক্ষামূলক লকডাউন। গত ৭ জুন রেড জোন চিহ্নিত করে শহরের আমলাপাড়া, জামতলা ও ভূঁইগড়ের রুপায়ন টাউন এলাকাকে ১৫ থেকে ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করে স্থানীয় প্রশাসন। পরে ওই এলাকায় সংক্রমণের হার কম দাবি করে তৃতীয় দিনের মাথায় আজ লকডাউন তুলে নেয়া হয়। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় লকডাউনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন হতে পারে বলেও জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।