করোনা মোকাবিলায় বড় বাধা বিশ্ব নেতৃত্ব ও ঐক্যের অভাব

প্রকাশিত: ২:০১ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস। ছবি : সংগৃহীত

রাজনীতিকরণের ফলে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়েছে উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলেছে- করোনাভাইরাসের চেয়েও বড় হুমকি হলো মহামারী মোকাবিলায় বিশ্ব নেতৃত্ব ও ঐক্যের অভাব।

সোমবার সংস্থাটির প্রধান টেড্রোস আডানম গেব্রিয়েসাস এই মন্তব্য করেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

টেড্রোস আডানম বিস্তারিত ব্যাখ্যা না দিলেও সংস্থাটি যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি সদস্য রাষ্ট্রের সমালোচনার মুখে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ডব্লিউএইচওর বিরুদ্ধে করোনা ঠেকাতে চীন-কেন্দ্রিক ও অনেক বেশি মন্থর বলে অভিযোগ করে আসছে। আরও কয়েকটি সদস্য রাষ্ট্র মহামারীতে সংস্থাটির ভূমিকা পর্যালোচনার দাবি তুলেছে। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে সংস্থাটিকে আরও বেশি ক্ষমতা প্রদানের আহ্বান জানানো হয়েছে, যাতে স্বাস্থ্য সংকটে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে পারে।

দুবাইতে আয়োজিত ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য সম্মেলন ওয়ার্ল্ড গভর্নমেন্ট সামিটে ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, বিশ্বের এখন জাতীয় ঐক্য ও বৈশ্বিক সংহতি ভয়াবহ প্রয়োজন। মহামারীর রাজনীতিকরণ পরিস্থিতি আরও খারাপ করেছে। সবচেয়ে বড় যে হুমকির মুখে আমরা রয়েছি তা খোদ ভাইরাস নয়, তা হলো বিশ্বের সংহতি ও বৈশ্বিক নেতৃত্বের অভাব।

টেড্রোস আডানম বলেছেন, আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যবিধির কিছু অংশ শক্তিশালী করা প্রয়োজন যাতে করে তা লক্ষ্যের সঙ্গে আরও বেশি সঙ্গতিপূর্ণ হয়। তবে কোন অংশ শক্তিশালী করতে হবে তিনি তা বলেন নি। বলেছেন- সমন্বিত, অনুমানযোগ্য, স্বচ্ছ, বিস্তৃতভিত্তিক ও নমনীয় তহবিল পূর্ণাঙ্গরূপে বাস্তবায়ন করতে হবে।

তিনি বলেছেন, সব দেশকে সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবাকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। চরম মূল্য দিয়ে বিশ্ব শিখেছে যে, বৈশ্বিক স্বাস্থ্য নিরাপত্তা এবং সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নতির ভিত্তি হলো শক্তিশালী স্বাস্থ্য ব্যবস্থা।

এর আগে শুক্রবার ডব্লিউএইচও সতর্ক করে জানায় যে, মহামারী এখনো গতিলাভ করছে এবং নতুন ও বিপজ্জনক পর্যায়ে প্রবেশ করেছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ পর্যালোচনা সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুসারে, বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ লাখ ৮১ হাজার ছাড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৭১ হাজারেরও বেশি মানুষের।