করোনায় টালমাটাল ভারত, এক রাজ্যেই চীনের চেয়ে বেশি শনাক্ত!

প্রকাশিত: ৭:০৪ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২০

ভয়াবহ হয়ে উঠেছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি। সোমবার সকালে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৫৮ হাজার ৯০ জনে। মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজারেরও বেশি মানুষের। বিশ্বে করোনাভাইরাস শনাক্তের দিক থেকে ভারত এখন পাঁচ নম্বর স্থানে রয়েছে।

সবচেয়ে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। শুধু এই রাজ্যেই ৮৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যা করোনার উৎসভূমি চীনের মোট আক্রান্তের সংখ্যার চেয়েও বেশি। চীনে মোট কভিড-১৯ রোগী পাওয়া গিয়েছিল ৮৪ হাজার ১৯১ জন।

কেবল করোনা শনাক্তেই নয়, এ ভাইরাসে মৃতের দিক থেকেও ভারতের অন্যান্য রাজ্যের চেয়ে এগিয়ে মহারাষ্ট্র। সরকারি হিসেবে এ রাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় ৩ হাজার ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা পাকিস্তানের মোট মৃত্যুর সংখ্যার চেয়ে বেশি।

মহারাষ্ট্রের অন্যান্য অঞ্চলের চেয়ে এখন পর্যন্ত এর রাজধানী মুম্বাইয়েই করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি। এখানে মোট ৪৮ হাজার ৭৭৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ভারতের অন্যতম প্রধান অর্থনৈতিক কেন্দ্র মুম্বাই জনবসতির ঘনত্বের দিক দিয়ে বিশ্বের শীর্ষ শহরগুলোর একটি। গত কয়েক সপ্তাহে করোনায় এ শহরের স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

আক্রান্তের সংখ্যায় মহারাষ্ট্রের পরই তামিলনাড়ুর অবস্থান। সেখানে মোট আক্রান্ত ৩১ হাজার ৬৬৭ জন। রাজধানী দিল্লিতে মোট ২৭ হাজার ৬৫৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গুজরাটে মোট আক্রান্ত ২০ হাজার ৭০ জন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুসারে, কভিড ১৯-এর কারণে ভারতে মোট মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ১৩৫ জনের। এর মধ্যে শুধু মহারাষ্ট্রেই মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৬০ জনের। গুজরাটে এক হাজার ২৪৯ জনের। এরপর রয়েছে দিল্লি, সেখানে মোট ৭৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে। শতাধিক মৃত্যুর তালিকায় রয়েছে মধ্যপ্রদেশ (৪১২), পশ্চিমবঙ্গ (৩৯৬), উত্তরপ্রদেশ (২৭৫), তামিলনাড়ু (২৬৯), রাজস্থান (২৪০) ও তেলঙ্গানা (১২৩)।