করোনার সময় কেন উপুড় হয়ে ঘুমানো ভালো?

প্রকাশিত: ৭:৪৯ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২০

আক্রান্ত গুরুতর রোগীদের আইসিইউ বা ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। ওই সময় তাদের উপুড় হয়ে শোওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। এটা আজ নতুন নয়। অনেক আগে থেকেই শ্বাসকষ্ট বা নিউমোনিয়ার রোগীদের একই পরামর্শ দেওয়া হতো। পেটের নিচে বালিশ রেখে ঘুমানো কষ্টকর। সে ক্ষেত্রে অল্প সময়ের জন্য হলেও উপুড় হয়ে শুয়ে বুক ভরে শ্বাস নিলে উপকার পাওয়া যায়। গত মাসে (১৪ এপ্রিল, ২০২০) সিএনএনে স্বাস্থ্যবিষয়ক এক আলোচনায় সিনিয়র মেডিকেল করেসপনডেন্ট এলিজাবেথ কোহেন বলেন, একজন গুরুতর অসুস্থ করোনা রোগীর জন্য এই পরামর্শে সুফল পাওয়া গেছে।

সাত বছর আগে নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনে ফরাসি চিকিৎসকদের একটি লেখা ছাপা হয়। সেখানে বলা হয় এআরডিএস (অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ডিস্ট্রেস সিনড্রম) বা শ্বাসতন্ত্রের চরম জটিলতায় আক্রান্ত যে রোগীদের ভেন্টিলেশনে রাখা হয়, তাদের উপুড় হয়ে শোয়ার ব্যবস্থা করলে মৃত্যুর আশঙ্কা কমে।

পেটের ওপর ভর দিয়ে শুয়ে শ্বাস-প্রশ্বাসে কী লাভ হয়, সেটাই প্রশ্ন। এ বিষয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা বলেন, ফুসফুসের একটি বড় অংশই রয়েছে পিঠের দিকে, বুকের দিকে নয়। উপুড় হয়ে শোওয়ার সুবিধা হলো ফুসফুসের বেশির ভাগ অংশ সহজে প্রচুর অক্সিজেন পায়। এবং সেটাই তাদের সুস্থ করে তুলতে সাহায্য করে। অনেক রোগীর ক্ষেত্রে দেখা গেছে শোওয়ার ভঙ্গি পরিবর্তনের ফলে তাদের রক্তে অক্সিজেনের অংশ ৮৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৯৮ শতাংশ পর্যন্ত হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের এই দুঃসময় অনেক চিকিৎসক রোগীদের বলেন, প্রতিদিন অল্প সময়ের জন্য হলেও উপুড় হয়ে শোওয়া ভালো। অস্বস্তি লাগলে অন্তত পাশ ফিরে শোওয়া উচিত।