করোনাকালেও চীনে বার্ষিক কুকুর খাওয়ার উৎসব!

প্রকাশিত: ১২:৫৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

করোনার কারণে বন্ধ থাকার পর চীনে আবারও চালু হয়েছে বন্যাপ্রাণী কেনা বেচার বাজার। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে চীনারা উদযাপন করতে চলেছেে কুকরের মাংস খাওয়ার বার্ষিক উৎসব। খবর দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট

প্রতি বছর চীনের ইউলিনে ২১ জুন থেকে শুরু হয় ১০ দিনের কুকুরের মাংস খাওয়ার উৎসব। এ উৎসবে যোগ দেন হাজার হাজার মানুষ। এখানে চলে কুকুর কেনাবেচা । করোনার কারণে চলতি বছর অবশ্য লোক সমাগম কম হবে বলেই আয়োজকদের ধারণা।

চীনাদের কুকুরের মাংস খাওয়ার এ উৎসব নিয়ে আলোচনা সমালোচনার শেষ নেই। বিশ্ব জুড়ে বিভিন্ন পশুপ্রেমী সংগঠন এর বিরোধিতা করে আসছে। টনক নড়েছে চীনের প্রশাসকদেরও। তারাও কুকুর রক্ষা করতে উদ্যোগী হচ্ছেন, তাতে আশা করা যায়, অচিরেই এ উৎসবটি বন্ধ হয়ে যাবে।

এ প্রসঙ্গে পশুপ্রেমী পিটার লি বলেন, আশা করছি, এটাই শেষ উৎসব। প্রাণীদের কথা না ভাবলেও নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা ভেবে হলেও এই নির্মম উৎসবটা বন্ধ করে দেবে চীনারা।

করোনাভাইরাস বন্যপ্রাণীদের মাধ্যমে চীনের উহান বাজার থেকে ছড়িয়ে পড়েছিল বলে ধারণা করা হয়। চীনের প্রথম শহর হিসেবে সেনজেন কুকুর খাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে এ বছরের এপ্রিলে। চীনের কৃষি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা কুকুরকে খাদ্য নয়, পোষ্য হিসেবে দেখতেই বেশি আগ্রহী।