আট মিনিটের নীরবতায় ফ্লয়েডকে স্মরণ

প্রকাশিত: ৬:০৬ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২০
ছবিঃ ইন্টারনেট

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেপোলিসে পুলিশি নির্যাতনে মারা যাওয়া কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের স্মরণে বৃহস্পতিবার এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ সেখানে আট মিনিট ৪৬ সেকেন্ড নীরবে দাঁড়িয়ে ফ্লয়েডকে স্মরণ করা হয়৷

এই ৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড সময়ই রাস্তায় পড়ে থাকা ফ্লয়েডের গলায় হাঁটু চেপে রেখেছিলেন এক পুলিশ কর্মকর্তা৷

মিনেপোলিসের নর্থ সেন্ট্রাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ঐ সভায় ফ্লয়েডের পরিবার, মিনেসোটার গভর্নর, সিনেটর ও মিনেপোলিসের মেয়রসহ কয়েকশত মানুষ অংশ নেন৷

ফ্লয়েডের আইনজীবী বেঞ্জামিন ক্রাম্প বলেন, করোনা মহামারিতে জর্জ ফ্লয়েড মারা যাননি৷ ‘‘ওটা একটা অন্য মহামারি ছিল৷ বর্ণবাদ ও বৈষম্যের মহামারি,’’ বলেন তিনি৷

সিভিল রাইটস অ্যাক্টিভিস্ট রেভারেন্ড আল শার্পটন বলেন, এখন দাঁড়িয়ে বলার সময়, ‘‘আমাদের গলা থেকে তোমাদের হাঁটু সরাও৷’’

ফ্লয়েডের মৃত্যুতে শুরু হওয়া আন্দোলন থামবে না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘‘ফ্লয়েডের সঙ্গে যা ঘটেছে তা এই দেশে প্রতিদিন ঘটছে- শিক্ষায়, স্বাস্থ্যসেবায়, মার্কিন জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে৷’’

এদিকে, ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর দেয়া প্রথম ভিডিও বার্তায় সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেন, তিনি তাঁর জীবনে এমন বিক্ষোভ দেখেননি৷ সমাজের সমস্যাগুলো সমাধানের এমন সুযোগ কাজে লাগাতে তিনি মার্কিনিদের প্রতি আহ্বান জানান৷

তবে আগের তুলনায় গত দুদিন বিক্ষোভের মাত্রা কিছুটা কম ছিল৷ এর পেছনে কয়েকটি কারণ কাজ করেছে বলে জানিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা৷ যেমন, ফ্লয়েড হত্যায় দায়ী পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আনা মামলা আরো শক্ত করা, বিক্ষোভ দমাতে আসা পুলিশ সদস্যদের নরম আচরণ এবং ফ্লয়েডের মৃত্যুতে জেগে ওঠা রাগ বেশিদিন টিকে না থাকার সম্ভাবনার উপলব্ধি৷ ‘‘ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, প্রতিদিন দাঙ্গা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়,’’ বলেন আটলান্টায় বিক্ষোভে অংশ নেয়া ২৬ বছর বয়সি কস্টা স্মিথ৷

অবশ্য নিউইয়র্কের মিগুয়েল ফার্নান্দেস এখনো সব দাবি পূরণ না হওয়ায় আরো কয়েকদিন বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়া উচিত বলে মনে করছেন৷

ফ্লয়েডের গলায় হাঁটু চেপে ধরা পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শভিনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় মাত্রার হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ তাকে সোমবার আদালতে তোলা হবে৷

এই সময় সেখানে উপস্থিত বাকি তিন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হত্যায় সহায়তার অভিযোগ আনা হয়েছে৷ বৃহস্পতিবার তারা আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন৷

এদিকে, বিক্ষোভকারীদের অবৈধভাবে সরিয়ে দেয়ার অভিযোগে ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার মামলা করেছে অ্যামেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন৷

গত সোমবার এক ঐতিহাসিক গির্জায় যেতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জন্য পথ তৈরি করতে ওয়াশিংটনের লাফায়েত্তে পার্কে জড়ো হওয়া বিক্ষোভকারীদের ধোঁয়া বোমা ও মরিচের গুঁড়া ব্যবহার করে সরিয়ে দেয়া হয়েছিল৷

সূত্রঃ এপি, এএফপি